Goodman Travels

শায়েস্তাগঞ্জে মুক্তিপণ না পেয়ে স্কুলছাত্রকে হত্যা। আটক তিন যুবক

 হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:  শায়েস্তাগঞ্জে অপহরণ করে ৮০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে তা না পেয়ে এক স্কুলছাত্রকে হত্যা করেছে তিন যুবক। জানা গেছে, গত রোববার (২৪ জানুয়ারি) রাত ৮টায় উপজেলার নুরপুর ইউনিয়নের পশ্চিম নছরতপুর গ্রামের ফারুক মিয়ার ছেলে আফরাজ আলী উচ্চবিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্র তানভীর আহমেদকে (১৬) অপহরণ করে একই গ্রামের জলিল মিয়ার ছেলে জাহেদ মিয়া (২৪), সৈয়দ আলীর ছেলে উজ্জ্বল মিয়া (২২) ও মলাই মিয়ার ছেলে শান্ত মিয়া (১৮)।

অপহরণের পর তানভীরের বাবা ফারুক মিয়ার কাছে ফোনে মুক্তিপণ বাবদ ৮০ লাখ টাকা দাবি করে ওই তিন যুবক। অপহরণকারীদের ফোন পেয়ে ঘটনাটি সঙ্গে সঙ্গে শায়েস্তাগঞ্জ থানার পুলিশকে জানান ফারুক মিয়া। পুলিশ অপহরণের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে রবিবার রাতেই জাহেদ ও শান্তকে আটক করে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করে। তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অপহরণের ‘মাস্টারমাইন্ড’ উজ্জ্বলকে আজ মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) সকালে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে গ্রেপ্তারকৃতদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী মঙ্গলবার বেলা ১টায় হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) রবিউল ইসলাম ও শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অজয় চন্দ্র দেবসহ একদল পুলিশ অপহরণকারী উজ্জ্বলের বাড়ির পুকুর থেকে অপহৃত তানভীরের লাশ উদ্ধার করে। তানভীরকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ও বুকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছে বলে স্বীকারোক্তি দিয়েছে ওই তিন যুবক। এদিকে একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে তানভীরের বাবা-মা বার বার মুর্ছা যাচ্ছেন। তাদের কান্নায় আর আর্তনাদে আকাশ-বাতাস ভারী হয়ে উঠছে।

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অজয় চন্দ্র দেব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘মুক্তিপণ না পেয়ে অপরহণকারীরা ছেলেটিকে হত্যা করে লাশ গুম করার জন্য পুকুরে ফেলে দেয়। আমরা আসামিদের গ্রেপ্তার করে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করায় তারা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।’