Goodman Travels

 রূপপুর প্রকল্পের গ্রীন সিটিতে একই রাতে ১ ঘন্টার ব্যবধানে ২ রুশ নাগরিকের মৃত্যু 

বিশেষ প্রতিনিধিঃ রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের গ্রীন সিটিতে একই রাতে ১ ঘন্টার ব্যবধানে ২ রুশ নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। আজ শনিবার ভোরে ঈশ্বরদী থানার পুলিশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করেছে।
ঈশ্বরদী থানার পুলিশের উপ পরিদর্শক (এসআই) মোঃ মেহেদী মাছুম মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। মৃত্যু সম্পর্কে পুলিশ জানায় , মৃত দুই রুশ নাগরিকের মধ্যে একজন মদ্যপান অবস্থায় সিঁড়ি থেকে পড়ে এবং অপরজন হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছেন।
পুলিশ আরোও জানায়,গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত আনুমানিক ৩টার দিকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের ট্রেস্ট রোসেম নামে রুশ সাব-ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার রুশ নাগরিক চুকিন পাভেল (৪৮) অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে দ্রুত তাঁকে গ্রিনসিটি আবাসিক থেকে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স আনা হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
অন্যদিকে রাত ২টার দিকে টলমাচেফ ভায়াচেস্লাভ (৫০) নামের এক রুশ নাগরিকের মৃত্যু হয়। তিনি ১২ নম্বর আবাসিক ভবনের ১৩ তলার ১৩১ নম্বর ফ্ল্যাটে বসবাস করেন। রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্পের এসএমইউ-১ নামে আরেকটি সাব-ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের ইনস্টলার হিসেবে কাজ করতেন তিনি। তিনি মদ্যপ অবস্থায় হাঁটার সময় হঠাৎ ১৪ তলার সিঁড়ি থেকে পড়ে অজ্ঞান হন। পরে কোম্পানির নিজস্ব ডাক্তার তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। রাতে দুজনের মরদেহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। পরে সেখান থেকে তাঁর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান বলেন, ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ দূতাবাসের মাধ্যমে নিজ দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে।
চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের সাইট ইনচার্জ রুহুল কুদ্দুস বলেন, ‘ধারণা করা হচ্ছে, পাভেল হৃদরোগে আক্রান্ত হন। ভায়াচেস্লাভ সিঁড়ি থেকে পড়ে মৃত্যু হয়।’