Goodman Travels

কুষ্টিয়ায় আরো ৯ জনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ৪২.৬৬

মোঃ রেজাউর রহমান তনু, কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:-কুষ্টিয়ায় করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আরো ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগের ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে মৃতের সংখ্যা ছিল ১৮ জন। সোমবার (২ আগষ্ট) সকাল ৯ টায় কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের পরিসংখ্যান কর্মকর্তা মো: মেজবাউল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত এবং উপসর্গ নিয়ে রোগী ভর্তির চাপ বৃদ্ধি পেয়েছে। আক্রান্ত এবং উপসর্গ নিয়ে সোমবার সকাল ৯ টা পর্যন্ত পর্যন্ত ২২৬ জন রোগী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এর মধ্যে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাই ১৭৬ জন। আর উপসর্গ নিয়ে ভর্তি রয়েছেন আরো ৪৭ জন। হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সাথে পাল্লা দিয়ে কুষ্টিয়া জেলায় শনাক্তের সংখ্যা আশংকাজনক ভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে। যা ঈদ বিবেচনায় ৯ দিনের শিথিল হওয়া লকডাউনে অবাধে চলাফেরা ও স্বাস্থ্যবিধি না মানার ফল বলে মন্তব্য করেছেন সচেতন মহলের কেউ কেউ। তাঁদের মধ্যে একদিনে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়েও রয়েছে ভিন্ন মত। তাঁদের মতে হাসপাতালের বাইরেও জেলার বিভিন্ন স্থানে করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে অনেকেই মৃত্যুবরণ করছেন। যার সঠিক সংখ্যা সবার অগোচরে থেকে যাচ্ছে। এদিকে কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাবে ১ আগষ্ট জেলায় ১১২৫ টি নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে নতুন করে ৪৮০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৪২ দশমিক ৬৬। জেলায় বর্তমানে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৪ হাজার ৮৯৬ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১১ হাজার ৪ জন। এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ৫৬৯ জন। নতুন করে শনাক্ত হওয়া ৪৮০ জনের মধ্যে রয়েছেন কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় ১৭৬ জন, কুমারখালী উপজেলায় ১৪০ জন, দৌলতপুর উপজেলায় ৪২ জন, ভেড়ামারা উপজেলায় ২৫ জন, মিরপুর ৬৬ জন এবং খোকসা উপজেলায় ৩১ জন। এখন পর্যন্ত জেলায় ৮৭ হাজার ৮৩২ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য নেওয়া হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন পাওয়া গেছে ৮২ হাজার ৪৯৬ জনের। বাকিরা নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদনের অপেক্ষায় রয়েছেন। বর্তমানে কুষ্টিয়ায় সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ৩ হাজার ৩৬৩ জন। এদের মধ্যে হাসপাতালে আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন ২৬০ জন। হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ৩ হাজার ৬৩ জন।