Goodman Travels

আগুনে বসতবাড়ী পুড়ে নিঃস্ব,সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিলেন চেয়ারম্যান মুক্তি

এম এ সালাম রুবেল ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাঁওয়ে কয়েলের আগুনে বসতবাড়ীর সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে নিস্ব হয়ে পড়েছেন বালিয়া ইউনিয়নের ৩ টি সনাতন পরিবার। বুধবার (২৪ মার্চ) আনুমানিক রাত ১১.৩০ মিনিটে সদর উপজেলার ৫ নং বালিয়া ইউনিয়নের কিসমত শুখানপুকুরী মিতালি পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। জানা যায়, মিতালি পাড়া গ্রামের কিরণ চন্দ্র বর্মণের ছেলে প্রসোত চন্দ্র বর্মণের গোয়াল ঘর থেকে কয়েলের আগুন লেগে মুহুর্তের মধ্যে ৩টি পরিবারের ১০ টি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। স্থানীয় বাসিন্দা ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। এতে ৭ টি গরু, ৮ টি ছাগল, নগদ ৩ লক্ষ টাকা ও ঘরের আসবাবপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ধারণা করা হচ্ছে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ১৫ লক্ষ টাকা। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্য জগদীশ চন্দ্র বর্মণ বলেন, আমরা সবাই ঘুমে পড়েয়েছিলাম। হঠাৎ দেখি আগুন। আমরা কোন কিছু বের করতে পারিনি। যা ছিলো সবটুকুও পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আমাদের গরু, ছাগল গুলো মারা গেছে। আমরা নিঃস্ব হয়ে গেছি। প্রশাসনের ও সমাজের ব্যক্তিবানদের সহযোগীতা কামনা করছি। এ বিষয়ে ৫ নং বালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নূরে এ আলম সিদ্দিকী মুক্তি বলেন, ঘটনাটি শুনার সাথেই সেখানে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারটির সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানায়েছি এবং আমার ব্যক্তিগত উদ্যোগে ৩ বস্তা চাল, ডাল, আলু, লবন, শাড়ী, লুঙ্গী, গামছা, বালতিসহ বিভিন্ন প্রয়োজনীয় পণ্য সামগ্রী দিয়ে সহায়তা করেছি। সেই সাথে উপজেলা প্রশাসনকে সহযোগিতার জন্য অবগত করেছি।